“আপনারাই পারেন রত্না দেবী, চোখের নিমিষে রং বদলাতে” পুরস্কার ফেরতে কটাক্ষ দেবাংশুর

0 74

- Advertisement -

ওয়েব নিউজ,১১মে: মমতা ব্যানার্জির বাংলা একাডেমি পুরস্কার প্রাপ্তির পর থেকে প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে সাহিত্যমহলে। গতকাল বাংলা একাডেমীর দেওয়ার সম্মান ফিরিয়ে দিয়েছেন রত্না রশিদ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং বাংলা একাডেমির বোর্ড থেকে পদত্যাগ করেছেন অনাদি রঞ্জন বিশ্বাস। মমতা ব্যানার্জির লেখাকে তাঁরা একেবারেই সাহিত্যের মধ্যে আনতে নারাজ। তাঁদের দাবি, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের লেখনীকে স্বঘোষিত বেস্ট সেলার বলেছেন যদিও তাঁদের বন্ধু বৃত্তের ৯০ শতাংশ লোকই মমতার একটি বইয়ের নাম জানেনা।

- Advertisement -

অনাদি বাবু ও রত্না বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রতিবাদ কে কেন্দ্র করে তাদের এক হাত নিলেন তৃণমূল যুব নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য।ফেসবুকে রত্না বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে একটি খোলা চিঠি পোস্ট করেন দেবাংশু। তাতে তিনি লেখেন, “রত্না দেবী খুব ভুল না করলে আপনি গত নির্বাচনে নো ভোট টু বিজেপির হয়ে সামাজিক মাধ্যমে সক্রিয় ছিলেন। মন্তব্য করতেন। বিজেপি এলে আপনাদের অবস্থা কি হবে এই নিয়ে আপনি যারপরনাই আর শঙ্কিত ছিলেন। কারণ সিপিএম আমলে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা ছিলে আপনি আর পারিবারিকভাবে সিপিএম করতেন। তাই জানেন কোন স্বৈরাচারী আর শোষক শক্তি যখন ক্ষমতা পায় তখন বিরুদ্ধ কন্ঠের অবস্থা ঠিক কি হয়। বর্ধমান এ বাড়ি আপনার রত্না দেবী। সাঁইবাড়ি গণহত্যা কেউ নিশ্চয়ই খুব কাছ থেকে দেখেছেন তাই না? আপনার স্বামীও সিপিএম করতেন,অথচ দেখুন এই সরকার এই মুখ্যমন্ত্রীর আমলে বাংলার সাহিত্য একাডেমী আপনাকে একটি আস্ত পুরস্কার দিল। সিপিএম আমলে, সিপিএম না করে পুরস্কার ভাবতে পারতেন রত্না দেবী?”

এখানেই শেষ নয় খোলা চিঠিতে বিজেপিকে কটাক্ষ করেছে দেবাংশু এবং রত্নাদেবীকে ভয় দেখিয়েছেন ডিটেনশন ক্যাম্পের। দেবাংশু লিখেছেন, “যাঁকে নিয়ে আপনার আজ এত সমস্যা তিনি না থাকলে ২০২১ এ বিজেপি আসতো। আপনার পুরষ্কার ফিরিয়ে দিয়ে তিনদিনের ফুটেজ খাওয়ার সময় পেতেন না, ওরা কেড়ে নিত। আপনার পুরষ্কার, আপনার সম্মান,আপনার জমি, আপনার বাড়ি,আপনার ঠিকানা এনআরসির ধাক্কায় আসামের বাঙ্গালীদের মত সব শুন্য হয়ে ডিটেনশন ক্যাম্প এর ছাউনির পেন্সিলে পড়ে থাকত রত্না দেবী।…. আপনারাই পারেন রত্না দেবী চোখের নিমিষে রং বদলাতে।”

দিও সাহিত্য একাডেমীর উপদেষ্টা পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন সাহিত্যিক অনাদি রঞ্জন বিশ্বাস, কিন্তু এ ব্যাপারে কোনও রকম প্রতিক্রিয়া দিতে দেখা যায়নি দেবাংশু ভট্টাচার্য কে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.