আমার আমলে কোনো দুর্নীতি হয় নি, দলের কোন বিজ্ঞ কি মন্তব্য করবে তাতে আমি কিছু বলবো না: নাম না করে কুণাল ঘোষকে খোঁচা পার্থর

0 108

- Advertisement -

ওয়েব নিউজ, ৭ মে: প্রায়ই তাঁকে নিয়ে বিতর্ক একের পর এক দানা বাঁধছে, আজ যদি এসএসসি নিয়োগ সংক্রান্ত বিতর্ক হয় কাল শৃঙ্খলা কমিটির থেকে পদচ্যুত হওয়া বিতর্ক – সব বিষয় নিয়েই অবশেষে মুখ খুললেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। পার্থ চট্টোপাধ্যায় এদিন মন্তব্য করেন, “আমার নাম কোনরকম দুর্নীতিতে জড়ায়নি। যতই চেষ্টা করুন না কেন পারবেন না । যতদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আছে ততদিন আমিও রয়েছি।”

- Advertisement -

এছাড়াও কুণাল ঘোষকে নাম না করে খোঁচা মেরেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। সম্প্রতি তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ একটি টুইটে লেখেন,”আমার মনে হয় ২০৩৬ সাল পর্যন্ত বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে থাকবেন আর তারপরেই মুখ্যমন্ত্রীর পদ কাঁধে তুলে নেবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।” এই টুইটের জবাবে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘অভিষেক তরুণ প্রজন্মের নেতাদের মধ্যে সেরা। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কারোর তুলনা হয় না। উনি আমাদের মুখ্যমন্ত্রী। পরবর্তীকালে এই পদে কে থাকবেন তা নিয়ে আমি ভাবছি না।’

প্রসঙ্গত তৃণমূল রাজ্য কমিটির বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় শৃঙ্খলা কমিটির চেয়ারম্যান পদ থেকে অপসারিত করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায় কে এবং মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অনুসারে সেই পদে আসীন হন সুব্রত বক্সী। এ বিষয়ে পার্থ চ্যাটার্জি কে প্রশ্ন করলে তিনি জানান, আমি যতদিন ছিলাম ততদিন কেউ কোনো দুর্নীতির অভিযোগ তুলতে পারেনি।আমাদের দলের কোন বিজ্ঞ কি বলবে তা নিয়ে আমি কিছু মন্তব্য করব না।

এসএসসি দুর্নীতিতে পার্থবাবুর নাম জড়ানোর পর থেকেই কুনাল ঘোষ সময়-সুযোগের টুইটারে তাকে নিয়ে প্রচুর ব্যঙ্গাত্মক টুইট করেছেন। সম্ভবত সেইসব টুইট এর জবাব হিসেবে এদিনের এই সাংবাদিক বৈঠক পার্থবাবুর।

এই বৈঠকে পার্থবাবুর মুখে সবসময়ের মতোই শোনা গেছে মুখ্যমন্ত্রীর স্তুতি। তিনি সর্বশেষে জানান, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যতদিন আছেন,আমিও ততদিন আছি। তিনি যেভাবে রাজ্য চালাচ্ছেন তাতে তারপর কে নেতা হবে সেটা নিয়ে মাথা ঘামানোর কোন প্রয়োজন নেই।

Leave A Reply

Your email address will not be published.