জ্বলছে লঙ্কা নগরী, বিক্ষোভকারীদের রুখতে মারাত্মক সিদ্ধান্ত বেছে নিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রক

0 42

- Advertisement -

ওয়েব নিউজ,১১ মে: জ্বলছে স্বর্ণলঙ্কা, না এবার বজরংবলী লেজের আগুনে নয়, প্রবল অর্থনৈতিক সংকটে মুদ্রাস্ফীতির আগুনে জ্বলছে শ্রীলংকা। মূল্যবৃদ্ধি চরমে উঠে যাওয়ায় রাস্তায় নেমেছেন দেশবাসী। বিক্ষোভের জেরে মন্ত্রিসভা সহ প্রধানমন্ত্রী ইস্তফা দিতে বাধ্য হয়েছেন। যদিওবা এই ইস্তফায় সুরাহা কিছুই মেলেনি। অবস্থা এতটাই ভয়াবহ যে প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর তরফ থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বিক্ষোভকারীদের গুলি চালিয়ে নিয়ন্ত্রণে আনতে। যে বা যারা সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর বা নষ্ট করবে বা ক্ষতি করবে তাদের উপর গুলি চালানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বায়ুসেনা, নৌসেনা ও সেনাবাহিনীকে।

- Advertisement -

সভাপতি প্রতিরক্ষা দপ্তরের এমন সিদ্ধান্তে সমালোচনার ঝড় উঠেছে সমগ্র বিশ্বজুড়ে। যদিওবা শ্রীলংকার সেনাপ্রধান সর্বেন্দ্র সিলভার বলেছেন এমন কোনো নির্দেশ পাওয়া যায়নি প্রতিরক্ষামন্ত্রী তরফ থেকে কোন পরিস্থিতিতেই সেনাবাহিনীও এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করবে না।

মার্চের শেষ দিকে শ্রীলঙ্কায় অর্থনৈতিক সংকট চরমে ওঠে। সে সময়ে সরকার পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয় ঋণের অর্থ তারা শোধ করতে পারবে না এবং দেশকে দেউলিয়া ঘোষণা করা হয়। তারপর থেকে ক্রমশ বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করে দেশবাসী। শেষ ২ মাসে দুবার জরুরি অবস্থা জারি হয়েছে তবুও দমানো যায়নি দেশবাসী ক্ষোভকে। বিগত দু’মাস ধরে চলতে থাকা বিক্ষোভের সময় শেষ অবধি মাথা নত করেন প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে। গত সোমবার ইস্তফা দিয়েছেন শ্রীলংকার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে।

অপরদিকে বিক্ষোভকারীদের আতঙ্কে দেশ ছেড়ে পালাতে শুরু করেছে স্বনামধন্য ধনী ব্যক্তিরা। প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে ও পরিবার নিরাপত্তাজনিত কারণে নৌ সেনা ঘাঁটিতে আশ্রয় নিয়েছেন।ইতিমধ্যে পুলিশ ও বিক্ষোভকারীদের খণ্ডযুদ্ধে নিহত হয়েছে ৮ জন। আহত হয়েছেন ২৫। দেশকে নিয়ন্ত্রণে আনতে সব রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করছে প্রতিরক্ষামন্ত্রক।

Leave A Reply

Your email address will not be published.