বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্রের সরঞ্জাম ও কার্তুজ উদ্ধার, পুলিশি  অভিযানে ধৃত ১, এলাকা জুড়ে চাঞ্চল্য

0 58

- Advertisement -

মালদা, ৩০ মার্চ: বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্রের সরঞ্জাম এবং কার্তুজ তৈরীর কারখানা হদিশ পেল চাঁচোল থানা পুলিশ। মঙ্গলবার গভীর রাতে দেবীগঞ্জ এলাকায় একটি বাড়িতে অভিযান চালায় চাঁচোল থানার পুলিশ। আর সেই বাড়ির একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে বিপুল পরিমাণ কার্তুজ এবং বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরীর বেশ কিছু সরঞ্জাম উদ্ধার করে পুলিশ।

- Advertisement -

 এই ঘটনায় সন্তোষ কর্মকার নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে তদন্তকারী পুলিশ কর্তারা। ধৃত ব্যক্তি দীর্ঘদিন ধরেই দেবীগঞ্জ এলাকার ওই বাড়িতে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র এবং কার্তুজ তৈরি করছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে জানতে পেরেছে পুলিশ।

 পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিনের এই অভিযানে ৩৮ টি কার্তুজ , বন্দুক তৈরীর কিছু সরঞ্জাম , একটি পাইপগান এবং আরো দু’টি বড় মাপের কার্তুজ উদ্ধার হয়েছে । দীর্ঘদিন ধরেই সন্তোষ কর্মকার বহিরাগত দুষ্কৃতীদের মদতে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরীর কাজে জড়িত ছিল বলে তদন্তে জানতে পেরেছে পুলিশ। বুধবার সকালে বিষয়টি জানাজানি হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে দেবীগঞ্জ এলাকায়।

 বুধবার ধৃত সন্তোষ কর্মকারকে চাঁচোল মহকুমা আদালতে পেশ করেছে পুলিশ।পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার গভীর রাতে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে দেবীগঞ্জ এলাকায় সন্তোষ কর্মকারের বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। সেই বাড়ির একটি পরিত্যক্ত ঘরে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরীর সরঞ্জাম গুলি উদ্ধার হয়েছে।

এদিকে ধৃত ওই ব্যক্তির এক দাদা ভরত কর্মকার জানিয়েছেন, তার ভাইয়ের সাথে পারিবারিক কোনো সম্পর্ক নেই তাদের। তার ভাইয়ের সম্পর্কে কোনো খোঁজখবর নিতেন না। তবে ওদের বাড়িতে মাঝেমধ্যে অচেনা মানুষের যাতায়াত ছিল। গোপনে যে এই ধরনের অসামাজিক কাজকর্মে তার ভাই যুক্ত হয়েছিল সে ব্যাপারে তাদের জানা ছিল না। 

চাঁচোল থানার আইসি সুকুমার ঘোষ জানিয়েছেন, গোপন সূত্রে অভিযান চালিয়ে বেআইনি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির সরঞ্জামসহ দুষ্কৃতীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ঘটনার পিছনে আর কারা জড়িত রয়েছে এবং এগুলি কোথায় পাচার করা হতো সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.