ধর্ষণের হুমকির ও খুনের অভিযোগ তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীর বিরুদ্ধে , আতঙ্কে পরিবারবর্গ সহ এলাকাবাসী

0 34

- Advertisement -

জলপাইগুড়ি, ২২ এপ্রিল : বাড়িতে চড়াও হয়ে শ্লীলতাহানীর পাশাপাশি ধর্ষণের হুমকি এলাকার কুখ্যাত তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতী, শ্বশুর বাধা দিতে গেলে লোহার রড দিয়ে আঘাত করে, ফলে মৃত্যু বৃদ্ধের , অভিযুক্ত পলাতক । আতঙ্কে মতিয়ার রহমানের পরিবার।

- Advertisement -

ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি কোতয়ালি থানার অন্তর্গত দশদরগা এলাকায় গত ১৩ এপ্রিল। ঘটনা প্রসঙ্গ শ্লীলতাহানী সহ ধর্ষনের হুমকি দেওয়া মহিলার স্বামী মতিয়ার রহমান জানান, ওই দিন দিনের বেলায়  দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকে ওয়াজুল হক ওরফে নটু। সেই সময় আমার স্ত্রী রান্না করছিলো। হাতে চাকু নিয়ে রান্না ঘরে ঢুকে ওয়াজুল এবং আমার স্ত্রীর পরনের নাইটি ছিড়ে দিয়ে বলে ধর্ষণ করবো, এই অবস্থা দেখে বাড়িতে থাকা আমার বৃদ্ধ বাবা বাধা দিতে আসলে লোহার রড দিয়ে আমার বাবাকে আঘাত করে যার ফলে আমার বাবা মাটিতে লুটিয়ে পরে, এরপর আমি খবর পেয়ে ছুটে বাড়িতে আসলে উক্ত ওয়াজুল আমাকে ও চাকু দেখিয়ে শাসায় এবং বলে তোর বউকে রেপ করবো, তোকে মেরে ফেলবো। আমি বাবাকে নিয়ে হাসপাতালে ছুটে যাই, এরপর বাবাকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজে পাঠায় ডাক্তাররা কিন্তু বৃহস্পতিবার বাবা মারা যায়।

অপরদিকে এই ঘটনা আগেই কোতয়ালী থানা এবং পুলিশ সুপারকে জানানো হয়েছিলো বলে দাবি করেন এলাকার তৃণমূল নেতা সন্তোষ দেবনাথ জানান, অভিযুক্ত ওয়াজুল হক ওরফে নটু এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করে রেখেছে বহুদিন থেকেই , এই ব্যাপারে এলাকার প্রধান ,কোতয়ালি থানার আই কি আগেও  জানানো হয়েছে কিন্তু কোনো ব্যবস্থা নেয় নি প্রশাসন।অভিযুক্ত এলাকায় তৃণমূলের মিছিলে মিটিংয়ে ঘুরে বেড়ায় বলেও দাবি করেন তৃণমূল নেতা সন্তোষ দেবনাথ।

অপরদিকে দুষ্কৃতী এখনো পুলিসের হাতে ধরা না পড়ায় আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে মতিয়ার রহমানের পরিবার সহ দশদরগা এলাকার নিরীহ গ্রামবাসীরা। ঘটনায় জলপাইগুড়ি জেলা পুলিশ সুপার দেবর্ষি দত্ত জানান অভিযোগ পেয়েছি , খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.