আলু বন্ডের কালোবাজারি নিয়ে সমস্যায় আলুচাষিরা

0 98

- Advertisement -

মালদা , ১১ এপ্রিল: আলুর বন্ডের কালোবাজারি নিয়ে রীতিমতো সমস্যায় পড়েছেন পুরাতন মালদার বিভিন্ন এলাকার আলুচাষিরা। তাঁদের অভিযোগ, নির্দিষ্ট মাত্রায় আলুর বন্ড না পেয়ে হিমঘরে পর্যাপ্ত আলু রাখতে পারছেন না চাষিরা । যারফলে জমি অথবা বাড়ির উঠোনে বস্তাভর্তি আলু ফেলে রাখতে হচ্ছে। খোলা জায়গায় বস্তাভর্তি আলু পড়ে থাকায় দাবদাহে অথবা ঝড়-বৃষ্টিতে আলু নষ্ট হচ্ছে। এই অবস্থায় কারা কালোবাজারিতে নেমেছে এবং চাষীদের চড়াদামে বন্ড পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করছে সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন পুরাতন মালদার বিভিন্ন এলাকার আলুচাষিরা।

- Advertisement -

যদিও এই পরিস্থিতির কথা জানতে পেরে পুরাতন মালদার বিডিও ইরফান হাবিব জানিয়েছেন, আলুর বন্ডের কালোবাজারি নিয়ে নির্দিষ্ট কোনো অভিযোগ মেলে নি। যদি কোনো নির্দিষ্ট অভিযোগ ব্লক প্রশাসনের কাছে জমা পড়ে, সে ব্যাপারে অবশ্যই বিষয়টি খতিয়ে দেখে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, পুরাতন মালদা ব্লকের মহিষবাথানী, যাত্রাডাঙ্গা, ভাবুক, মঙ্গলবাড়ী, সাহাপুর সহ একাধিক গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় কয়েক’শ একর জমিতে এবারে আলুর চাষ হয়েছে । সংশ্লিষ্ট এলাকার আলুচাষিরা অথবা আশেপাশের বেসরকারি হিমঘরে আলু রাখার ব্যবস্থা করেন। গরমের মরশুম শুরু হতেই দাবদহ বাড়ছে। আর এক্ষেত্রে এখন নির্দিষ্ট বন্ড না মেলায় হিমঘরে আলু রাখা নিয়ে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন চাষীরা।

মহিষবাথানি এলাকার আলুচাষি রিয়াজুল শেখ, আমিন শেখদের বক্তব্য , হিমঘরে আলু রাখার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট মাত্রায় বন্ড পাচ্ছি না। ফলে বিপুল পরিমান উৎপাদিত আলু নিজেদের জমিতে ও বাড়িতে মজুত রাখতে হচ্ছে । এই অবস্থায় হিমঘরে আলুর মজুত না করতে পারলে প্রচুর লোকসান হবে। চাষীদের ক্ষতির মুখে পড়তে হবে। আর এই পরিস্থিতির সুযোগ নিচ্ছে একশ্রেণীর কালোবাজারিরা। আলুর বন্ড পেতে মোটা টাকা গুনতে হচ্ছে। এব্যাপারে প্রশাসনের প্রয়োজনীয় হস্তক্ষেপে দাবি জানিয়েছেন পুরাতন মালদার অধিকাংশ আলুচাষিরা।

পুরাতন মালদা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মৃণালিনী মন্ডল মাইতি জানিয়েছেন , চাষীদের সমস্যার বিষয়ে ব্লক প্রশাসনকে জানানো হবে । কোন রকম ভাবেই আলুর বন্ড পাওয়ার ক্ষেত্রে কালোবাজারি বরদাস্ত করা হবে না।

Leave A Reply

Your email address will not be published.