দুটো ফুসফুসের অর্ধেকের বেশি জলে ভরা! ক্যানসারকে সাথে নিয়েই হয়ে উঠেছিলেন অধীরা

0 156

- Advertisement -

ওয়েব ডেস্ক, ১৮ এপ্রিল :

- Advertisement -

জীবনে প্রচুর সংগ্রাম মধ‍্যে দিয়ে গিয়েছেন বিখ্যাত অভিনেতা সঞ্জয় দত্ত (Sanjay Dutt)। রিহ‍্যাবে কাটিয়েছেন, জেল খেটেছেন। এমনকি তিনি ক‍্যানসারের মতো মারণ রোগের সঙ্গে লড়াইও করেছেন।

প্রৌঢ়ত্বে এসে ক‍্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার খবরটা বিরাট ধাক্কা দিয়েছিল তাঁকে ।

 

সম্প্রতি, সুপারহিট কন্নড় সদ্যমুক্তিপ্রাপ্ত ছবি ‘কেজিএফ চ‍্যাপ্টার ২’ খলনায়ক অধীরার চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। জানিয়েছিলেন, ক‍্যানসারকে সঙ্গে নিয়েই অধীরা হয়ে উঠেছিলেন তিনি। শুনতে খুব সহজ লাগলেও বিষয়টা যে কতটা কঠিন ছিল তা জানেন শুধু অভিনেতা নিজে। ক‍্যানসার হয়েছে জানতে পেরে নাকি ৩ ঘন্টা ধরে শুধুই কেঁদেছিলেন তিনি।

 

দুবছর আগে, লকডাউনের সময় ক‍্যানসারে আক্রান্ত হওয়ার খবর পান সঞ্জয়। দিনটার কথা স্বরণ করে অভিনেতা বলেন, সকালে দৈনন্দিন সব কাজ তিনি করছিলেন ঠিকই, কিন্তু দম যেন ফুরিয়ে আসছিল তাঁর। চিকিৎসককে ডেকে চেক আপ করানোর পর জানতে পারেন , দুটি ফুসফুসের অর্ধেকের বেশি জলে ভরা।

 

প্রাথমিকভাবে সবাই যক্ষ্মা ভাবলেও, পরে জানা যায় রোগটা আরো মারাত্মক,…….. ক‍্যানসার! সঞ্জয় জানান, সকলে চিন্তায় পড়ে গিয়েছিল , কথাটা তাঁকে কীভাবে জানাবে । সর্বপ্রথম অভিনেতার বোন এসে তাঁকে দুঃসংবাদটা জানান। সঞ্জয় বলেন, “এমতাবস্থায় যে কেউ পরবর্তী পদক্ষেপগুলো ভাববে। কিন্তু আমি দু তিন ঘন্টা ধরে শুধু কেঁদেছিলাম‌। আমার স্ত্রী, সন্তান, নিজের জীবনের কথা ভেবে। তারপরেই আমি ঠিক করলাম, দুর্বল হলে চলবে না।”

বিখ্যাত অভিনেতা হৃতিক রোশনের বাবা রাকেশ রোশন একজন অভিজ্ঞ চিকিৎসকের খোঁজ দিয়েছিলেন সঞ্জয়কে। সেই চিকিৎসক আগে থেকেই তাঁকে জানিয়ে রেখেছিলেন কেমোথেরাপির কিছু পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার ব‍্যাপারে। যেমন চুল পড়ে যাওয়া ইত্যাদি । কিন্তু সঞ্জু বাবা নিশ্চিত ছিলেন যে তাঁর কিছুই হবে না।
এই মনের জোর নিয়েই কেমোথেরাপির পর এক ঘন্টা তিনি সাইকেল চালাতেন এমনকি ব‍্যাডমিন্টনও খেলতেন!
ক‍্যানসার নিয়ে করেছেন শুটিং।
জানিয়েছিলেন, মৃত‍্যুর আগে পর্যন্ত অভিনয় করে যাবেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.