কোচবিহারে দলের প্রকাশ্য গোষ্ঠী কোন্দলেও ঐক্যের নিদর্শন রাখলেন তৃণমুল প্রবীণ নেতারা, ইতিহাস ও শিকড়ের টানে ঘুরলেন জেলার মন্দিরগুলোতে

0 111

- Advertisement -

কোচবিহার, ২৬ এপ্রিল: শিকড়ের সন্ধানে বেরিয়েছেন কোচবিহার জেলা তৃনমূল কংগ্রেসের তিন প্রাক্তন জেলা সভাপতি। উদ্দেশ্য কোচবিহার জেলার বিভিন্ন পুরনো মন্দিরের ইতিহাসকে উন্মোচন করা। মন্দিরগুলি নিয়ে গবেষণা করা। একদিকে যখন এই তিন প্রবীণ নেতা শিকড়ের সন্ধানে বেরিয়ে পড়েছেন অন্যদিকে তাদের এই কর্মসূচি নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক জল্পনা।

- Advertisement -

কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের মধ্যে বর্তমানে চলছে ব্যাপক গোষ্ঠী কোন্দল। সম্প্রতি কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি পার্থপ্রতিম রায়ের সঙ্গে কোচবিহার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের চেয়ারম্যান গিরীন্দ্রনাথ বর্মনের গোষ্ঠী কোন্দল চরমে পৌঁছেছে। জেলা সভাপতি চেয়ারম্যান কে গুরুত্ব দিচ্ছে না বলে অভিযোগ। প্রকাশ্যে জেলা সভাপতির বিরুদ্ধে একাধিকবার মুখ খুলেছেন গিরীন্দ্রনাথ বর্মন। আর এই গিরীন্দ্রনাথ বর্মন এর নেতৃত্বে কোচবিহার জেলার আরও ২ বর্ষিয়ান নেতা রবীন্দ্রনাথ ঘোষ এবং বিনয় কৃষ্ণ বর্মন বেরিয়ে পড়েছেন শেকড়ের সন্ধানে।

আজ কোচবিহারের বানেশ্বর মন্দিরে এই তিন প্রাক্তন জেলা সভাপতি একসঙ্গে মন্দিরে পুজো দিলেন। মন্দির চত্বরে বসে বেশ কিছুক্ষণ সময় কাটালেন। গিরীন্দ্র নাথ বর্মন, রবীন্দ্রনাথ ঘোষ, বিনয় কৃষ্ণ বর্মনরা তাদের এই কর্মসূচিকে অরাজনৈতিক কর্মসূচি বললেও এই কর্মসূচির মধ্যেও রাজনীতি খুঁজে পাচ্ছে বিরোধীরা। বিরোধীদের দাবি তৃণমূল কংগ্রেসের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরে দলের মধ্যে গুরুত্ব পাচ্ছে না এই তিন প্রাক্তন জেলা সভাপতি। তাই তাদের অস্তিত্ব রক্ষার লড়াইয়ে একত্রিত হয়েছেন এই তিন প্রাক্তন জেলা সভাপতি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.