মাত্র ২০০০ টাকায় আগ্নেয়াস্ত্র: নবান্ন বৈঠকে বিস্ফোরক মুখ্যমন্ত্রী

0 112

- Advertisement -

ওয়েব নিউজ,২৮ এপ্রিল : বুধবার নবান্নে জেলাশাসক, এসডিপিও, বিডিও সহ পুলিশ সুপারদের ভিডিও কনফারেন্স বৈঠকে বসেছিলেন মমতা। আর এখানে তিনি সম্প্রতি রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে পুলিশ প্রশাসনকে প্রায় এক হাতে নিয়েছেন।

- Advertisement -

রাজ্যে একের পর এক ঘটনায় রাজ্য সরকার রীতিমত কোণঠাসা। বিরোধী পক্ষের প্রতিদিনের কটাক্ষে যেন তৃণমূল নেতাকর্মীদের প্রাণ ওষ্ঠাগত। রামপুরহাটের অগ্নিকাণ্ড, তপন কান্দু খুন , এস এস সি বিতর্ক, হাঁসখালি থেকে ময়নাগুড়ি লাগাতার ধর্ষণ কাণ্ডের জেরে রাজ্যের মানুষের ক্ষোভ পুরোটাই এখন মা মাটি মানুষের সরকারের উপর। এমন অবস্থায় গতকালের বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমগ্র পুলিশ প্রশাসনের সামনে করে বসলেন বিস্ফোরক মন্তব্য।

২৭ শে এপ্রিল নবান্নে ভার্চুয়াল বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে ওঠেন। আর এই বৈঠকেই তিনি বলে বসেন , বর্তমানে বাংলায় মাত্র ২০০০ টাকায় বন্দুক পাওয়া যাচ্ছে।

বুধবার নবান্নের বৈঠকে তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, আমার কাছে খবর এসেছে মাত্র ২০০০ টাকা দিলেই আমাদের রাজ্যে যে কোনো ব্যক্তি আগ্নেয়াস্ত্র পেয়ে যাচ্ছেন। এরপর সে নিজে খুন না করে লোক লাগিয়ে খুন করছেন। আগে এসব আমরা সিনেমার পর্দায় দেখতাম , এখন সে গুলো জীবনে প্রতিফলিত হচ্ছে।

বগটুই কাণ্ডে একাধিক মানুষের মৃত্যুর পরই রাজ্য রাজনীতি মহলে হুলুস্থূল শুরু হলে নড়েচড়ে বসেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তড়িঘড়ি পুলিশদের নির্দেশ দেন রাজ্য জুড়ে বেআইনী আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধারের জন্য। পুলিশি তৎপরতায় বেআইনী আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হলেও খুন রাহাজানির ঘটনা ক্রমশ বেড়েই চলছে। আর মুখ্যমন্ত্রীর ঘটনায় তা স্পষ্ট। এদিন বৈঠকে জেলাশাসক ও পুলিশের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন , আমাদের তৎপর হতে হবে, এবং খেয়াল রাখতে হবে যাতে বিহার থেকে বেআইনী আগ্নেয়াস্ত্র প্রবেশ বন্ধ হয়।

Leave A Reply

Your email address will not be published.