বাবুল সুপ্রিয়র প্রাক্তন আপ্ত সহায়ক এর বিরুদ্ধে লক্ষাধিক টাকার প্রতারণার অভিযোগ আনল সিবিআই

0 59

- Advertisement -

ওয়েব নিউজ,১০ মে: ২০১৬ থেকে ২০১৯ পর্যন্ত কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে ভারী শিল্প দফতরের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছিলেন বাবুল সুপ্রিয়। সেই সময় তাঁর কার্যভার সামলানোতে সাহায্য করতেন তাঁরই অতিরিক্ত ব্যক্তিগত সচিব সুশান্ত মল্লিক।এদিন সুশান্ত মল্লিক এর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

- Advertisement -

সিবিআই এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ই পি আই এল সংস্থার বেশকিছু আধিকারিক ও বাবুল সুপ্রিয়র ব্যক্তিগত সচিব সুশান্ত মল্লিক মিলে আশুতোষ বন্দ্যোপাধ্যায় নামে এক ব্যক্তিকে বেআইনিভাবে টেন্ডার পাইয়ে দিয়েছিলেন। সেই ঘটনার জেরে ২০১৬ সালে আশুতোষ বন্দ্যোপাধ্যায় কাছ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা ঘুষ নেন তারা। এ ক্ষেত্রে মূল অভিযুক্ত ই পি আই এল সংস্থার এমডি এস পি এস বক্সী। এ ঘটনায় সুশান্ত মল্লিক ৫ লক্ষ টাকা আত্মসাৎ করেন। সুশান্ত মল্লিক এবং সংস্থার আধিকারিকের বিরুদ্ধে এফ আই আর দায়ের করেছে সিবিআই।

এ ব্যাপারে বাবুল সুপ্রিয় কে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আপনারা দেখতেই পাচ্ছেন ২০১৬ সালে একটি মামলার এফআইআর করা হলো ২০২১ সালে। আর ২০২২ সালে তার চার্জশিট জমা পড়ছে। একটি ৫০ লাখ টাকার মামলার জন্য যদি সিবিআই এতগুলো বছর সময় লাগায়, তাহলে বড় মামলা গুলিতে কি করবে? এদের বিশ্বাসযোগ্যতা সম্পর্কে আমার কিছু বলার নেই।”

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য বাবুল সুপ্রিয় কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী থাকাকালীন তার অতিরিক্ত ব্যক্তিগত সচিবের পদ সামলায় সুশান্ত মল্লিক। শুধু তাই নয় রেলমন্ত্রী নিতিশ কুমার এবং পরবর্তীকালে প্রিয়রঞ্জন দাশমুন্সির ও ব্যক্তিগত সচিব পদে নিযুক্ত ছিলেন সুশান্ত মল্লিক। বাবুল সুপ্রিয় বিজেপিকে করে বলেন, “বর্তমানে আমার নাম যে কোনো ঝামেলায় জুড়ে দেওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে, বাংলায় এক বিজেপি নেতা রয়েছে যিনি দিল্লিতে গিয়ে আমার নামে কোনো না কোনো মামলা জুড়ে দেওয়ার চেষ্টায় রয়েছেন।” তবে বলা বাহুল্য, সুশান্ত মল্লিক কে সচিব পদে কোনোকালেই পছন্দ ছিল না বাবুলের পরবর্তীতে তিনি সুশান্ত মল্লিক কে পদচ্যুত করে তার জায়গায় অন্য সচিব নিযুক্ত করেন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.