“২০২৪ এ লোকসভার সাথে বিধানসভা নির্বাচন!” বিস্ফোরক দাবি শুভেন্দু অধিকারীর

0 96

- Advertisement -

ওয়েব নিউজ,১১মে: রাজ্যের ক্রমশ বাড়ছে দুর্নীতি, ধর্ষণ, খুন, রাহাজানি। আইন-শৃঙ্খলার অবনতি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।এমতাবস্থায় ২০২১ বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকেই রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবিতে সরব হয়েছে বঙ্গ বিজেপি। এরই মধ্যে আরেকটি বিস্ফোরক মন্তব্য করতে শোনা গেল রাজ্যে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে। তাঁর বিস্ফোরক মন্তব্যের জেরে সরগরম রাজ্য রাজনীতি।

- Advertisement -

মঙ্গলবার বিধানসভা থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তিনি বলেন,”২০২৪ এ লোকসভা এবং বিধানসভা ভোট একসঙ্গে হবে কিভাবে জানার দরকার নেই।” এই মন্তব্যকে স্বভাবতই ইঙ্গিতবাহী বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞ মহল। যদিও বা বিজেপির রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি খারিজ হয়ে গেছে এবং ক্রমাগত নজরে আসছে বিজেপির অন্তর্কোন্দল।

সম্প্রতি রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। যদিওবা বাংলা রাষ্ট্রপতি শাসনের কথা ফুৎকারে উড়িয়ে দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। বঙ্গ সফরে এসে ৩৫৬ ধারা জারির প্রস্তাবকে সরাসরি নাকচ করেছেন তিনি। অমিত শাহ বলেছেন, “বিপুল ভোটে জয়ী হয়ে তৃণমূল কংগ্রেস তৃতীয়বার সরকার গঠন করেছে। ৩৬৬ ধারা জারি করে নির্বাচিত সরকারকে ফেলা যায়না। রাজনৈতিকভাবেই শাসকদলের বিরুদ্ধে আমাদের লড়তে হবে।” যদিও বা এমন বক্তব্যের রাজ্য বিজেপি কিছুটা চুপসে গেছে। কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সফরের পরেই এমন বিস্ফোরক মন্তব্য বিরোধী দলনেতার কার্যত এতে তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি।

শুভেন্দু অধিকারী মন্তব্যের প্রেক্ষিতে রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা মনে করেছেন, সম্ভবত বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার দিকে নির্দেশ করছেন শুভেন্দু অধিকারী। তাই লোকসভার সাথে বিধানসভা নির্বাচনের কথা তিনি বললেন। আর রাজ্যের সিংহাসন পাওয়ার জন্য বিজেপি কতটা মরিয়া তা তো ২০২১ এর প্রমাণই পাওয়া গেছে।

Leave A Reply

Your email address will not be published.