ঘোষিত হল ৬৮তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার, যৌথভাবে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেলেন অজয় দেবগন এবং সূর্য

৬৮ তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-এর মঞ্চে দক্ষিণী ছবির জয় জয়কার। যৌথভাবে সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেলেন অজয় দেবগন (Ajay Devgn) এবং সূর্য (Suriya)। সেরা বাংলা ছবি নির্বাচত অভিযাত্রিক । আসুন জেনে নিন পুরস্কার প্রাপকদের বিস্তারিত তালিকা..

0 121

- Advertisement -

ওয়েব ডেস্ক, ২২ জুলাই:- ঘোষিত হল ৬৮তম জাতীয় পুরস্কার প্রাপকদের তালিকা। আর এবারের জাতীয় পুরস্কারে দক্ষিণী ছবির জয়জয়কার। ‘তানহাজি’ (Tanhaji) ছবির জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেলেন অজয় দেবগন । তাঁর সঙ্গেই যৌথভাবে এই পুরস্কার পেয়েছেন ‘সুরারই পট্টরু’ ছবির নায়ক সূর্য। অন্যদিকে, সেরা বাংলা ছবি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে ‘অভিযাত্রিক’ । অর্জুন চক্রবর্তী এবং দিতিপ্রিয়া রায় অভিনীত এই ছবিটির ঝুলিতে এসেছে দু’টি পুরস্কার। সেরা বাংলা ছবি এবং সেরা সিনেম্যাটোগ্রাফির পুরস্কার ছিনিয়ে নিয়েছে পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্রর এই ছবিটি।

সেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পেয়েছেন অপর্ণা বালামুরালি। অভিনেতা সূর্যর (Suriya) বিপরীতে তিনি অভিনয় করেছেন ‘সুরারাই পট্টরু’ ছবিতে।

- Advertisement -

সেরা ছবি নির্বাচিত হল সচ্চিদানন্দন কে আর পরিচালিত মালয়ালম ছবি এ কে আয়াপ্পানম।

সেরা ফিচার ছবি নির্বাচিত হয়েছে সুধা কোঙ্গারা পরিচালিত ‘সুরারই পট্টরু (Soorarai Pottru)।’

জাতীয় পুরস্কারে এবার দক্ষিণী ছবি ‘সুরারই পট্টরু’র দাপট। সেরা অভিনেতা, সেরা অভিনেত্রী এবং সেরা ছবির পর এই ছবির ঝুলিতে এল সেরা সংগীত পরিচালকের পুরস্কারও। এই পুরস্কার জিতে নিলেন জি ভি প্রকাশ এবং আলা বৈকুণ্ঠপুরামুলু।

সেরা সহ অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন বিজু মেনন।

মরণোত্তর সেরা পরিচালকের পুরস্কার দেওয়া হল সচিকে।

সেরা সুরকারের (Best Lyricist) পুরস্কার পেয়েছেন ‘সাইনা’র জন্য মনোজ মালয়ালম।

‘১২৩২ কিলোমিটার মারেঙ্গে তো ওহি জাকর’ গানটির জন্য সেরা সংগীত পরিচালকের পুরস্কার পেলেন বিশাল ভরদ্বাজ।

সামাজিক বিষয় নিয়ে তৈরি সেরা ছবি নির্বাচিত হয়েছে ‘জাস্টিস ডিলেইড বাট ডেলিভারড’ এবং ‘থ্রি সিস্টার্স’ (Three Sisters) ছবি দু’টি। বাঙালি পরিচালক রত্নাবলী রায়ের এই ছবিটি সামাজিক ইস্যুর জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে।

‘জাদুই জঙ্গল’ ছবির জন্য অন লোকেশন সাউন্ড রেকর্ডিস্টের জাতীয় পুরস্কার পেলেন সন্দীপ ভাটি এবং প্রদীপ লেখার।

‘বন্ডারল্যান্ডস’ ছবির জন্য সেরা এডিটরের পুরস্কার পেলেন অনাদি আথলে।

‘মনসুনস অফ কেরালা’ ছবির জন্য সেরা ভয়েস ওভার আর্টিস্টের পুরস্কার পেলেন শোভা থারুর।

সর্বাধিক চলচ্চিত্র বান্ধব রাজ্য হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে মধ্যপ্রদেশকে। প্রশংসিত উত্তরাখণ্ড এবং উত্তরপ্রদেশও।

সর্বাধিক বিনোদনমূলক ছবি বেছে নেওয়া হয়েছে ‘তানহাজি’কে (Tanhaji)।

এ বছরের জাতীয় পুরস্কারের জন্য কোনও সমালোচনামূলক ছবি বেছে নিতে পারেনি কমিটি।

Leave A Reply

Your email address will not be published.